কয়েক লক্ষ টাকার আত্মস্মাতের অভিযোগ পোস্টমাস্টারের বিরুদ্ধে, বিক্ষোভ জামুড়িয়ায়

কয়েক লক্ষ টাকা আত্মস্মাতের অভিযোগ উঠল জামুরিয়া উপডাকঘরের পোস্টমাস্টারের বিরুদ্ধে। প্রতারিত গ্রহকরা বিক্ষোভ দেখাতে গেলে জানতে পারেন অভিযুক্ত পোস্টমাস্টারের ট্রান্সফার হয়ে গেছে।

author-image
Tamalika Chakraborty
New Update
jamuria 1.jpg

নিজস্ব সংবাদদাতা: কয়েক লক্ষ টাকা আত্মস্মাতের অভিযোগ উঠল পোস্টমাস্টারের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে জামুড়িয়া থানার অন্তর্গত নন্ডী উপ ডাকঘরে। প্রতারিত গ্রাহকরা পোস্টমাস্টারকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান।

পোস্ট অফিসের গ্রাহক পুনা রুইদাস, তপন চট্টোপাধ্যায়, কুরান গড়াই, কল্যাণ চন্দ্র অভিযোগ করেন কিছুদিন আগে তারা পোস্ট অফিসে টাকা তুলতে গিয়েছিলেন সেই সময় পোস্টমাস্টার রূপেন হাঁসদা লিঙ্ক বা সার্ভার নেই বলে তাঁদেরকে বলেছিলেন। তাঁরা বাড়ি ফিরে এলেও  টাকা তোলার স্লিপ পোস্টমাস্টার তাঁর নিজের কাছে রেখেছিলেন। রূপেন হাঁসদা গ্রাহকদের জানিয়েছিলেন, টাকা এলে তাঁদের জানিয়ে দেওয়া হবে। কিন্তু গত ১৫ তারিখে তাঁদের মোবাইলে মেসেজ আসে। সেখানে তাঁদের টাকা তোলার কথা লেখা ছিল। সেই মেসেজ পেয়ে তাঁরা পোস্ট অফিসে আসেন। কিন্তু পুজোর ছুটি থাকায় পোস্ট অফিস বন্ধ ছিল। তাই তাঁরা মঙ্গলবার আসেন পোস্টমাস্টারের সঙ্গে কথা বলতে।  কিন্তু তাঁরা এসে দেখেন, পোস্টমাস্টার রুপেন হাঁসদা গত পাঁচ তারিখে ট্রান্সফার হয়ে চলে গিয়েছেন। তাঁর পরিবর্তে নতুন পোস্টমাস্টার এসেছেন। 



জানা গিয়েছে, পুনা রুইদাসের ৭০ হাজার ২০০ টাকা ,তপন চট্টোপাধ্যায়ের ৪৯ হাজার টাকা, কোরান গড়াইয়ের ৪৯ হাজার ,কল্যাণী চন্দ্রের ১০০০০ টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে। 

পোস্টমাস্টার তপন মণ্ডল জানান, তিনি চলতি মাসের ১৭ তারিখে এই ডাকঘরে কাজে যোগ দিয়েছেন। তার পূর্ববর্তী পোস্টমাস্টার কী করেছেন তা তিনি জানেন না। তবে গ্রাহকদের অভিযোগ  তিনি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাবেন। পোস্টমাস্টার তপনবাবু জানান তিনি শুনেছেন ইতিমধ্যে তার পূর্ববর্তী পোস্টমাস্টারের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।