পাকিস্তানে ভোট দিতে এসেছিলেন মেসি, রোলান্ডো! ভাইরাল ভিডিও

পাকিস্তানের ব্যালট পেপারে পাওয়া গেল ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো, লিওলেন মেসি ও নেইমার জুনিয়রের নাম। পাকিস্তানের সাধারণ নাগরিকরা থেকে বিরোধীরা বার বার ইভিএমে কারচুপির অভিযোগ নিয়ে এসেছিল।

New Update
ানস .jpg

নিজস্ব সংবাদদাতা: সম্প্রতি পাকিস্তানে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হল। তারপরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা গিয়েছে, ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো, লিওলেন মেসি ও নেইমার জুনিয়রের নামের সঙ্গে ব্যালট পেপার।  ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, কিলিয়ান এমবাপ্পের নামও রয়েছে ব্যালট পেপারে। ভিডিও অনুসারে ব্যালট পেপারে বিখ্যাত ফুটবল খেলোয়ারদের বাবার সঠিক নামও ব্যালটে লেখা রয়েছে।  

ইমরান খানের দল সহ একাধিক পাকিস্তানের দল ভোটের ফলাফলের কারচুপির অভিযোগ এনেছিল।  বার বার অভিযোগ করা হয়েছে, ইভিএমে পাকিস্তানের নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপি করা হয়েছে। ইভিএমের কারচুপির অভিযোগ আরও জোরদার হল এই ভিডিওয়ের মাধ্যমে। যদিও এই ভিডিও-এর স্বচ্ছতা এএনএম নিউজ যাচাই করেনি। 

যদিও ভিডিওটি পাকিস্তানের। তবে এক নেটিজেন সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে বলেন, এই কারণেই কংগ্রেস ব্যালটে ফিরে যেতে চায়। 

পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে কোনও দলই সংখ্যা গরিষ্ঠতা পায়নি। তবে বিলাওয়াল ভুট্টো ও নওয়াজ শরিফের দল জোট বেঁধে নিজেদের জয় নিশ্চিত করেছে। প্রধানমন্ত্রীর পদটাও ভাগাভাগি হয়েছে। তিন বছরের জন্য নওয়াজ শরিফ প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসবেন। দুই বছরের জন্য প্রধানমন্ত্রী হবেন বিলাওয়াল ভুট্টো। যদিও ইমরান খানের দল পিটিআই দাবি করেছেন, তারাই এই নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন। ভোটের ফলাফলের কারচুপির জেরে তাঁরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। ইভিএম মেশিনে কারচুপির অভিযোগ এনে পাকিস্তানের একাধিক জায়গায় বিক্ষোভ দেখান সাধারণ নাগরিকরা। পিটিআইও বড় ধরনের বিক্ষোভের হুমকি দিয়েছে। অন্যদিকে পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি ভোটে ব্যাপক পরিমাণে রিগিং হওয়ার অভিযোগ কার্যত স্বীকার করে নিয়েছেন।